Monday , May 20 2019
Breaking News
Home / শিক্ষা মূলক / আজকের বিশ্ব / রোহিঙ্গা ইস্যু . বাংলাদেশ হুমকির সম্মুখীন

রোহিঙ্গা ইস্যু . বাংলাদেশ হুমকির সম্মুখীন

জাতিসংঘ আবারও আহবান জানিয়েছে নতুন করে আসা আরো কিছু রোহিঙ্গা কে আশ্রয় দিতে!
আসুন দেখে নিই ২০১৭ থেকে এই পর্যন্ত রোহিঙ্গারা আমাদের কি কি দিয়েছে –
বিজিবি আনসার ক্যাম্প লুট, অস্ত্র ছিনতাই, একজন আনসার সদস্য খুন!
রান্নাবান্না সহ বাসস্থান নির্মাণ বাবদ রোহিঙ্গাদের হাতে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ পর্যন্ত ধ্বংস হয়েছে ৬ হাজার হেক্টর বনভূমি।
রোহিঙ্গারা এক রাতে ধ্বংস করেছে ৮২ হাজার গাছ, কয়েকশ হেক্টর বনভূমি।
জমি দখলে বাঁধা দেয়ায় স্থানীয় যুবককে পিটিয়ে হত্যা!
দোকান তুলতে বাঁধা দেয়ায় পুলিশ পিটিয়ে আহত।
স্থানীয় দের সামাজিক বনায়ন দখল, বাঁধা দেয়ায় হামলা এবং হত্যার হুমকি, গরু ছিনিয়ে নিয়ে গেছে!
পবিত্র কুরআন শরীফ কেটে ইয়াবা পাচার।
রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী হাকিম ডাকাতের তান্ডবে কয়েক গ্রামের লোক ঘরছাড়া। প্রশাসন এবং পুলিশ কে হুমকি।
খাবার দিতে দেরি হওয়ায় রিলিফ ক্যাম্পে হামলা!
মায়ানমার থেকে তাদের ফিরিয়ে নিতে আলোচনার জন্য ডেলিগেট এলে পুলিশের সাথে ধস্তাধস্তি মারামারি।
ক্যাম্পে টিউবওয়েল বসানোর সময় কয়েকজন বাঙালি কে পিটিয়ে গুরুতর আহত।
গুজব ছড়িয়ে তিনজন জার্মান সাংবাদিক এবং একজন পুলিশ কে পিটিয়ে গুরুতর আহত।
স্থানীয় একজন বাঙালি ডাক্তারকে অপহরণ এবং খুন।
সর্বশেষ একজন হাফেজ কে অপহরণ এবং খুন।
এছাড়া খুন, অপহরণ, ইয়াবা পাচার, স্থানীয় দের জমি দখল, স্থানীয় নিম্ন শ্রেণির মানুষের জীবন জীবিকার প্রধান উৎস কৃষি খামার ধ্বংস সহ সামাজিক নিরাপত্তা বিরাট হুমকির মুখে পড়েছে।
পাশাপাশি জন্মনিয়ন্ত্রণ পদ্ধতি না মানা এবং বাল্যবিবাহে আকৃষ্ট হওয়ায় প্রতিটি পরিবারে শিশুর সংখ্যা ৮ থেকে ১২ টি! যার মধ্যে গত দেড় বছরে জন্ম নেয় এক লক্ষ বিশ হাজার শিশু।

এত অনাচারের পরেও এদের এইদেশে আশ্রয় প্রশ্রয় দেওয়া হয়েছে এবং দিচ্ছে যে সেটাই বিস্ময়!
এইবার জাতিসংঘের উচিত অন্যান্য দেশে এদের একইভাবে আশ্রয় দেয়ার আহবান জানানো।
আমাদের পক্ষে এদের ভরণপোষণের দায়িত্ব নেয়া আর সম্ভব না।
এখুনি সময় উপযুক্ত ব্যবস্হা নেওয়ার!
এমন মহানুভবতার পরিচয় দিয়ে কি লাভ? যদি নিজের দেশের জনগণই নিরাপত্তা না পায়!!
=SaveChattogram
=SaveBangali
=SaveBangladesh
∆GobackRohingya
তথ্যসূত্র:: Wikipedia.

About moktokotha

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *