Tuesday , July 23 2019
Breaking News
Home / ক্রিকেট / পাঞ্জাব বনাম মুম্বাই

পাঞ্জাব বনাম মুম্বাই

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগের আজকের দিনের প্রথম ম্যাচে রোহিত শর্মার মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স এর মুখোমুখি হয় রবিচন্দ্রন অশ্বিনের কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব। টস ভাগ্যটা যেন সবসময়ই সাথে থাকে রবিচন্দ্রন অশ্বিনের। আজকেও তার ব্যতিক্রম হয়নি। টসে জিতে বোলিংয়ের সিদ্বান্ত নিয়েছেন অশ্বিন। আর তাতেই কপাল পুড়ল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের । টসের ফাঁদে পড়ে প্রথম ইনিংসে ব্যাটিং করতে হলো রোহিতের মুম্বাইকে।

রোহিত শর্মার সাথে কুইন্টন ডি কক এর ওপেনিং পার্টনারশীপ ৫ ওভারে ৫০ রান ছাড়িয়ে যায়। ৬ষ্ঠ ওভারের ২য় বলে ব্যক্তিগত ৩২ রানে ক্যাপ্টেনের বিদায়ের ঘন্টা বেজে যায়। নতুন ব্যাটসম্যান সুরিয়াকুমার যাদবও টিকতে পারেনি বেশিক্ষন। দলীয় ১১ রান বাড়লেই ৭ম ওভারের দ্বিতীয় বলে মুরুগান অশ্বিনের বলে বিদায় নেয় সুরিয়াকুমার। যাওয়ার আগে দুটি চারে ৬বলে ১১ রান করেন সুরিয়াকুমার। ধীরগতির যুবরাজ সিংয়ের সাথে ৪০ বলে ৫৮ রানের পার্টনারশীপ গড়েন ডি কক। ১৩তম ওভারের শেষ বলে দলীয় ১২০ রান এর সময় মোহাম্মদ সামীর বলে এল বি ডব্লিউ এর ফাঁদে পড়েন উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান কুইন্টন ডি কক। ৩৯ বলে ৬টি চার ও ২টি ছক্কায় ব্যাক্তিগত ৬০ রানে বিদায় নেন ডি কক। যুবরাজ সিং ধীরগতির ব্যাটিং নিয়েও টিকতে পারেনি বেশিক্ষন। ২২ বলে ১৮ রান করে মুরুগান অশ্বিনের শিকার হন তিনি। কিরণ পোলার্ড বরাবরের মতো ব্যার্থ এই ম্যাচেও। ৭রান করেই ফিরেন সাজঘরে। ৭ রান করতে খেলে ফেলেন ৯ বল। গত দুই ম্যাচের মতো এই ম্যাচেও ঝড় তুলেছিলেন হার্দিক পান্ডিয়া। পান্ডিয়ার ব্যাট থেকে এসে ১৯ বলে ৩২ রান। তাতেই ১৭৬ রানের একটা লড়াকু পুঁজি পায় মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। গত দুই ম্যাচের মতো খরুচে না হলেও কোনো উইকেট পাননি পাঞ্জাব ক্যাপ্টেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন। তবে আজকের সফল বোলার মুরুগান অশ্বিন ৪ ওভার বল করে মাত্র ২৫ রান খরচ করে তুলে নেন ২টি মূল্যবান উইকেট।

দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে খুব ভালোই শুরু করেছিল কিংস ইলিভেন পাঞ্জাব। ৮ম ওভারের ২য় বলে দলীয় ৫৩ রানে ক্রুনাল পান্ডিয়ার বলে হার্দিক পান্ডিয়ার হাতে ক্যাচ দিয়ে উইকেট থেকে বিদায় নেন ক্রিস গেইল। দুই পান্ডিয়ার সহযোগের শিকার হয়েছেন বিশ্বসেরা এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। যাওয়ার আগে চার ছক্কায় মাতিয়েছিলেন গ্যালারী। মাত্র ২৪ বলে ৩টি চার ও ৪টি ছক্কায় ৪০ রান করে উইকেট ছাড়েন ক্রিস গেইল।

দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে আগারওয়াল এর সাথে ৬৪ রানের পার্টনারশীপ গড়েন ওপেনার লোকেশ রাহুল। ২১ বলে ৪টি চার ও ২টি ছক্কায় ব্যাক্তিগত ৪৩ রান করে ক্রুনাল পান্ডিয়ার বলে ক্যাচ হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরেন ব্যাটসম্যান আগারওয়াল। ক্রুনাল পান্ডিয়া নিজের বলে নিজেই ক্যাচ তুলে নেন আগারওয়াল এর।

ডেভিড মিলারের সাথে ৩১ বলে ৬০ রানের অবিচ্ছেদ্য পার্টনারশীপ গড়ে ম্যাচ জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন লোকেশ রাহুল। মাত্র ৫৭ বলে ৬টি চার ও ১টি ছক্কায় অপরাজিত৭১রান করেন লোকেশ রাহুল। ১০বলে ২টি চারে ১৫ রান করে অপরাজিত ছিলেন ডেভিড মিলার। সবচেয়ে খরুচে বোলার ক্রুনাল পান্ডিয়াই পাঞ্জাবের হারানো উইকেট দুটি তুলে নেন।

ফলাফল: পাঞ্জাব ৮উইকেটে জয়ী।

আজকের দিনের অপর ম্যাচে কলকাতার বিপক্ষে লড়ছে দিল্লী।

About Meraj Sheikh

Check Also

সানরাইজার্স হায়াদ্রাবাদ বনাম রাজস্থান রয়্যালস

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগের ৮ম ম্যাচে আজকের দিনে মুখোমুখি হয়েছে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ ও রাজস্থান রয়্যালস। দলকে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *